টেলিটক টাকা ধার নেয় কিভাবে | how to take loan in teletalk sim

টেলিটক টাকা ধার নেয় কিভাবে | how to take loan in teletalk sim
টেলিটক টাকা ধার নেয় কিভাবে | how to take loan in teletalk sim 


টেলিটক টাকা ধার নেয় কিভাবেঃ আমাদের বাংলাদেশের মধ্যে অন্যতম একটি টেলিকম কোম্পানি হচ্ছে টেলিটক। যেটি কিনে বাংলাদেশের একদম রাজস্ব টাকা দিয়েই আশা করি চলা হয়ে থাকে।

তাই আপনি যদি একজন এই টেলিটকের গ্রাহক হয়ে থাকেন এবং আপনি যদি সেখানে ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স নিতে চান তাহলে কিভাবে নিবেন সেটা আজকের এই আর্টিকেলে আমি আপনাদের সাথে শেয়ার করব।

আমাদেরকে অনেক সময় বিভিন্ন সমস্যার কারণে রিচার্জ করতে পারি না কিংবা অনেক সময় ফ্লেক্সিলোডের দোকান খুঁজে পাই না। বিশেষ করে আমরা যখন কোন একটা জায়গাতে ভ্রমন করতে যাই সেখানে আমরা টেলিটকের রিচার্জ করার কোন উপায় খুঁজে পাই না।

বিশেষ করে টেলিটক ব্যবহারকারী যেহেতু কম তাই আশা করি ফ্লেক্সিলোডের দোকানে টেলিটক রিচার্জ করার অপশনটা খুবই কম থাকে। যার কারণে আমাদেরকে অবশ্যই টেলিটক টাকা ধার নেয় কিভাবে এটা জানা থাকতে হয়।

তাই মূলত তাদের কথাই চিন্তা করে যারা কিনা টেলিটক ইমারজেন্সি ব্যালেন্স নিতে চাই তাদেরকে উদ্দেশ্য করে আজকের এই আর্টিকেলটি লেখা হয়েছে।

তাই আপনি যদি টেলিটক টাকা ধার নেয় কিভাবে এই সব বিষয় সম্পর্কে জানতে চান তাহলে আজকের এই আর্টিকেলটি আপনার জন্য। তাছাড়া আজকের এই আর্টিকেলে আমি টেলিটক সম্পর্কিত আরো অনেক তথ্য শেয়ার করব যেগুলো কিনা হয়তো আপনি আগে কখনো জানেন নাই।

তাহলে আপনি যদি টেলিটক টাকা ধার নেই কিভাবে এটা জানতে চান তাহলে অবশ্যই আর্টিকেলটি শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত পড়ার চেষ্টা করবে। কেননা আপনি যদি স্ক্রল করে করে দেখেন কিংবা পড়েন‌ তাহলে হয়তো আপনি অনেকগুলো মিসটেক করে যাবেন। তাহলে চলুন আর কথা না বাড়িয়ে শুরু করা যাক।


টেলিটক টাকা ধার নেয় কিভাবে | how to take loan in teletalk sim 

আপনার কাছে কি আপনার টেলিটক সিমে যে সমস্ত টাকা কিংবা ব্যালেন্স অ্যাভেলেবেল ছিল সেগুলো কি ফুরিয়ে গেছে। এবং আপনি এমন একটা জায়গায় পৌঁছেছেন যেখানে কিনা ফ্লেক্সিলোডের দোকান অ্যাভেলেবেল নেই।

কিংবা আপনি এমন কোন অপশন খুঁজে পাচ্ছেন না যেখান থেকে কিনে আপনি আপনার সিমের মধ্যে টাকা রিচার্জ করে নিবেন। তাহলে সেখান থেকে ফিরে আসার উপায় কি সেটা কি আপনি জানেন?

অর্থাৎ আপনার একাউন্ট টেলিটক সিমে টাকা না থাকার সত্বেও আপনি রিসার্জ না করার সত্ত্বেও কিভাবে আপনি আপনার সিমের মধ্যে টাকা ধার নিবেন সেটা কি জানেন। যদি না জানেন তাহলে আজকের পোস্টটি আপনার জন্য।

অনেকে হয়তো এই বিষয়টা বিশ্বাস করেন না যে, টেলিটক সিম কিংবা অন্যান্য যে সমস্ত অপারেটর রয়েছে সেগুলোতে ইমারজেন্সি ব্যালেন্স কিংবা লোন নেওয়া যায়। তবে এ ক্ষেত্রে অবশ্যই একজন ভালো আলেমের পরামর্শ নিবেন যে, এখানে টাকা লোন নেওয়ার পরে যে কয়েক টাকা চার্জ কাটা হয় সেগুলো সুদ হবে কিনা।

আমাদের মাঝেমধ্যে এমন এক সময় চলে আসে যেখানে কিনা আমাদের সিমের মধ্যে টাকার অত্যন্ত প্রয়োজন পড়ে। হঠাৎ করে আমাদেরকে অনেক সময় অনেক আত্মীয়-স্বজন কিংবা বন্ধু-বান্ধবদেরকে কল দিতে হয় কোন একটা গুরুত্বপূর্ণ কাজের জন্য।

বিশেষ করে আমরা যখন কোন একটা জায়গাতে ভ্রমন করতে যাই এবং সেখানে অনেক সমস্যার কারণে আমাদেরকে বাড়িতে কিংবা অনেকের কাছে কল করতে হয় আমাদের সমস্যা গুলো জানানোর জন্য।

কিন্তু বিশেষ করে টেলিটক সিমের ফ্লেক্সিলোডের দোকানের সবখানেই পাওয়া না যাওয়ার কারণে আমাদেরকে অনেক সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়। তাই আজকে আমি আপনাদের সাথে শেয়ার করব কিভাবে আপনি টেলিটক সিমে ইমারজেন্সি ব্যালেন্স নিবেন।

কমবেশি আমরা সকলেই জানি টেলিটক সিমের মধ্যে ইমারজেন্সি ব্যালেন্স নেওয়ার যে সিস্টেমটা রয়েছে সেটা হচ্ছে ১০ টাকা, ২০ টাকা, ৩০ টাকা কিংবা ৫০ টাকা পর্যন্ত। অর্থাৎ তারা ১০ টাকা থেকে ৫০ টাকা পর্যন্ত তাদের গ্রাহকদের কে লোন দিয়ে থাকে গুরুত্বপূর্ণ কাজের জন্য।

তারা ঐ সমস্ত লোকদেরকে এই হিসেবে প্রদান করে থাকে যাদের সিমে কি না টাকা ফুরিয়ে গেছে এবং টাকা কম হয়ে গেছে। আপনি যদি এর ভুক্তভোগী হয়ে থাকেন তাহলে তাদের এই সেবাটি আপনি গ্রহণ করতে পারেন।

কিভাবে গ্রহণ করবেন অর্থাৎ তাদের ইমারজেন্সি ব্যালেন্স কিভাবে নিবেন সেটা জানার জন্য অবশ্যই আজকের এই পোস্টটি আপনাকে শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত মনোযোগ দিয়ে পড়তে হবে এবং সেই অনুযায়ী চেষ্টা করতে হবে।

তো আমি আপনাদেরকে আবারও বলছি আপনি যদি এই সব বিষয় সম্পর্কে বিস্তারিত ভাবে জানতে চান তাহলে অবশ্যই আর্টিকেলটি শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত পড়ুন। না হলে আপনি অনেক কিছু মিসটেক করে যাবেন।


টেলিটক ইমারজেন্সি ব্যালেন্স নেওয়ার কোড | Teletalk emergency balance code

আপনি যদি টেলিটক সিমের ইমারজেন্সি ব্যালেন্স নেওয়ার যে অপশনটা রয়েছে অর্থাৎ 10 টাকা থেকে ৫০ টাকা পর্যন্ত যে সেবাটা তারা তাদের গ্রাহকদেরকে প্রদান করে থাকে সেটা উপভোগ করতে চান তাহলে আপনাকে তাদের দেওয়া নির্দিষ্ট একটা কোড ডায়াল করার মাধ্যমে সেবাটা গ্রহণ করতে হবে।

তাই আপনি যদি তাদের এই সেবাটা গ্রহণ করতে চান তাহলে আপনাকে যে কোডটি ডায়াল করতে হবে সেটা হচ্ছে *১১২২# এই কোডটি ডায়েরি করার সাথে সাথে আপনার স্কোরিং ফিচার যাচাই করার মাধ্যমে আপনি কত টাকা পর্যন্ত লোন নিতে পারেন সেটা আপনাকে দিয়ে দিবে।

অর্থাৎ উপরে আমি যে কোডটি আপনাদের সাথে শেয়ার করেছি সেটা আপনার টেলিটক সিম থেকে ডায়াল করার সাথে সাথে তারা একটা অ্যামাউন্ট আপনাকে লোন দিয়ে দিবে।

অর্থাৎ এই গ্রুপটা ডায়াল করার সাথে সাথে সংক্রিয়ভাবে একটা অ্যামাউন্ট তারা আপনাকে প্রদান করবে অর্থাৎ আপনি কত টাকা তাদের থেকে লোন নিতে পারেন সেটা দিয়ে দিবে।

তবে এছাড়াও আপনারা ভিন্ন ভিন্ন কোড ডায়াল করার মাধ্যমে ভিন্ন ভিন্ন অ্যামাউন্টে আপনারা লোন নিতে পারেন। তবে সে ক্ষেত্রে অবশ্যই আপনাকে ভিন্ন ভিন্ন কোড ডায়াল করতে হবে অথবা ভিন্ন ভিন্ন পদ্ধতিতে এসএমএস দিতে হবে।


টেলিটক ইমারজেন্সি ব্যালেন্স নেওয়ার কোড | Teletalk Emergency Balance Code 2022

আপনি যদি ভিন্ন ভিন্ন এমাউন্ট নিতে চান অর্থাৎ ১০ টাকা ২০ টাকা ৫০ টাকা এরকম করে আপনি ইমারজেন্সি ব্যালেন্স নিতে চান তাহলে আপনাকে ভিন্ন ভিন্ন কোড ডায়াল করতে হবে।

অথবা ভিন্ন ভিন্ন এসএমএস আপনাকে দিতে হবে ভিন্ন ভিন্ন এমাউন্টে ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স নেওয়ার জন্য। তার জন্য অবশ্যই আর্টিকেলটি মনোযোগ দিয়ে পড়বেন এবং সেই অনুযায়ী কাজ করার চেষ্টা করবেন।

দুইটি পদ্ধতি অবলম্বন করে আপনি তাদের থেকে অর্থাৎ টেলিটক অপারেটর যেটা রয়েছে সেখান থেকে আপনি টাকা লোন নিতে পারবেন কিংবা ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স গ্রহণ করতে পারবেন (১) সরাসরি কোড ডায়াল করার মাধ্যমে (২) এসএমএস করার মাধ্যমে 


আপনাদের সুবিধার্থে আমি নিচে কিছু প্যাকেজ দিয়ে দিয়েছি আপনারা সেগুলো উপভোগ করতে পারেন। অর্থাৎ নিচে আমি আপনাদেরকে এমন কিছু কোড অথবা এমন এসএমএস দেওয়ার কিছু অপশন দেখিয়ে দিয়েছি সেখান থেকে আপনারা ভিন্ন ভিন্ন উপায়ে ইমারজেন্সি ব্যালেন্স নিতে পারবেন।

  • আপনি যদি একজন টেলিটক গ্রাহক হয়ে থাকেন এবং সেখান থেকে ‌ ইমারজেন্সি ব্যালেন্স নিতে চান তাহলে আপনাকে ডায়াল করতে হবে আপনার টেলিটক সিম থেকে *১১২২# এই কোডটি। এই কোডটি ডায়াল করার সাথে সাথে আপনার স্কোরিং ফিচার চেক করার মাধ্যমে আপনাকে সংক্রিয়ভাবে একটা এমাউন্ট তারা লোন দিয়ে দিবে। এক্ষেত্রে আপনার কোন প্রকার চার্জ প্রযোজ্য হবে না। অথবা আপনি এসএমএস করতে পারেন আপনার টেলিটক সিম থেকে loan লিখে ১১২২ এই নাম্বারে।
  • আপনি যদি তাদেরকে নির্দিষ্ট ১০ টাকা এমাউন্ট লোন নিতে চান তাহলে আপনার টেলিটক সিম থেকে ডায়াল করতে হবে *১১২২*১০# । এই ক্ষেত্রে আপনার কোন চার্জ প্রযোজ্য হবে না। অথবা এসএমএস এর মাধ্যমে এই প্যাকেজটি নেওয়ার জন্য ১০ লিখে এসএমএস করুন ১১২০ নাম্বারে।
  • আপনি যদি তাদের থেকে নির্দিষ্ট বারো টাকা এমাউন্ট ইমারজেন্সি ব্যালেন্স নিতে চান তাহলে আপনাকে ডায়াল করতে হবে আপনার টেলিটক সিম থেকে *১১২২*১২# । এই ক্ষেত্রে আপনার মোট ১.৬০ টাকা ফি প্রযোজ্য হবে। অথবা এই প্যাকেজটি এসএমএসের মাধ্যমেই নেওয়ার জন্য ১২ লিখে এসএমএস করুন ১১২২ নাম্বারে।
  • আপনি যদি আপনার টেলিটক সিমে ২০ টাকা ইমারজেন্সি ব্যালেন্স নিতে চান তাহলে আপনাকে আপনার টেলিটক সিম থেকে ডায়াল করতে হবে *১১২২*২০# । এই ক্ষেত্রে আপনার ২ টাকা ৬৭ হয়েছে ভ্যাট প্রযোজ্য হবে। অথবা ২০ লিখে এসএমএস করুন ১১২২ নাম্বারে।
  • আপনি যদি আপনার টেলিটক সিমে ৩০ টাকা ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স নিতে চান তাহলে আপনাকে আপনার টেলিটক সিম থেকে ডায়াল করতে হবে *১১২২*৩০# এই কোডটি। অথবা এসএমএস এর মাধ্যমে নেওয়ার জন্য 30 লিখে এসএমএস করুন ১১২২ নাম্বারে। এই ক্ষেত্রে আপনার মোট ৪ টাকা ফি কাটতে পারে।
  • আপনি যদি আপনার ছেলেকে সিমে ৫০ টাকা ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স কিংবা লোন নিতে চান তাহলে আপনাকে আপনার টেলিটক সিম থেকে ডায়াল করতে হবে *১১২২*৫০# । অথবা এই প্যাকেজটি এসএমএসের মাধ্যমে নেওয়ার জন্য ৫০ লিখে এসএমএস করুন ১১২২ নাম্বারে। এই ক্ষেত্রে আপনার ৬ টাকা ৬৬ পয়সা ফি কাটতে পারে।

টেলিটক ইমারজেন্সি ব্যালেন্স চেক | Teletalk emergency balance check

আপনি কে আপনার টেলিটক সিমের মধ্যে ইমারজেন্সি ব্যালেন্স নিয়েছেন এবং কত টাকা বাকি আছে অর্থাৎ আপনি কত টাকা এ পর্যন্ত পরিশোধ করেন নাই এটা জানতে চান? তাহলে কিভাবে জানবেন এখান থেকে জেনে নি।

কেননা এখন আমি আপনাদের সাথে যে বিষয়টা শেয়ার করব সেটা হচ্ছে টেলিটক ইমারজেন্সি ব্যালেন্স চেক করার নিয়ম। অর্থাৎ আমরা অনেক সময় অনেক টাকা ব্যালেন্স লোন নিয়ে থাকি কিন্তু এ পর্যন্ত আমি কত টাকা পরিশোধ করেছি এবং কত টাকা অবশিষ্ট রয়েছে সেটা জানিনা।

তাই আপনি যদি এর ভুক্ত বিগে হয়ে থাকেন তাহলে একটা কোড ডায়াল করার মাধ্যমে আপনার ও পরিশোধিত ইমারজেন্সি ব্যালেন্স আপনি খুব সহজেই দেখতে পাবেন।

তার জন্য আপনি যে টেলিটক সিমের মধ্যে ইমারজেন্সি ব্যালেন্স নিয়েছিলেন সেখানে ডায়াল করুন *১১২২*০# এই কোডটি ডায়াল করার সাথে সাথে আশা করি আপনার অবশিষ্ট ইমারজেন্সি ব্যালেন্স বা অপরিশোধিত ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স কত টাকা রয়েছে সেটা দেখতে পাবেন।

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url